একই রকম হেয়ার কাটে বোর হয়ে উঠেছেন! নতুন কোন হেয়ার কাট দিতে চাচ্ছেন। তার জন্য ভরসা একমাত্র কি পার্লার বা হেয়ার স্টাইলার? না। চাইলে কিন্তু নিজেই ঘরে বসে ২-৩ টা সরঞ্জামের সাহায্যে নতুন যে কোন হেয়ার কাট করে নিতে পারবেন। অন্য কারো সাহায্য ছাড়াই। ভাবতেই পারছেন না!  নিজে, কীভাবে সম্ভব! হ্যা। আপনাকে সাহায্য করার জন্য তো সাজগোজ রয়েছেই। আজ আপনাদের সাথে খুব জনপ্রিয় একটি হেয়ার কাট এর কৌশল শেয়ার করব।

ফ্রন্ট লেয়ারড হেয়ার কাটটি তরুণীদের কাছে খুব পছন্দের। কারণ এই হেয়ার কাটটি প্রায় সব শেইপের চেহারায় সহজেই মানিয়ে যায়। আজ আপনাদের সাথে এই লং লেয়ারড হেয়ার কাট নিজেই কীভাবে ঘরে বসে করতে পারবেন তার কৌশল শেয়ার করব। যেকোন হেয়ার কাটের জন্য তিনটি জিনিস থাকাই চাই সেগুলো হল – শার্প কেঁচি, চিরুনি এবং হেয়ার থিনিং সিজর। বোঝার সুবিধার্থে নিচের ছবিতে এই দু’ধরণের কেঁচির ছবি দিয়ে দেয়া হল।  তবে যদি কেউ হেয়ার থিনিং সিজর কেনাটাকে বাড়তি ঝামেলা মনে করেন তাহলে বাড়িতেই থাকা সিজর দিয়ে করতে চাইলেও করতে পারেন। তবে পার্লারের মতো ফিনিশিং চাইলে থিনিং হেয়ার সিজর থাকা লাগবেই।

 

আচ্ছা এবার চলে যাই প্রথম ধাপে। এই ধাপে আপনাকে চুল ধুয়ে পরিষ্কার করে নিতে হবে। চুল হালকা ভেজা থাকলে ভালো সিল্কি স্মুদ চুল হলে ভেজানো লাগবে না। অপরিষ্কার চুলে কখনই হেয়ার কাট ভালো হবে না কাজেই চুল শ্যাম্পু করে ঝট ছাড়িয়ে তবেই চুল কাটতে বসুন। এই ধাপে সব চুল সামনের দিকে উল্টে নিন। এবার ভালো করে আবার আঁচড়ে নিন। পনিটেল/ ঝুঁটির মতো করে একদম হেয়ার লাইন ঘেঁষে রাবার ব্যান্ড দিয়ে বেঁধে নিন। ছবিতে দেখুন।

এবার ধীরে ধীরে নিচে নেমে আসুন। চিন বা থুঁতনি বরাবর আরেকটি রাবার ব্যান্ড দিয়ে বেধে নিন। এখন একেবারে চুলের আগার কাছে চলে যান। চুল যতটুকু লম্বা রাখতে চান তার ঠিক নিচে আরেকটি রাবার ব্যান্ড লাগিয়ে নিন।

এবার কাটার পালা। এই ধাপে চুলের আগায় চলে যান। রাবারের উপরের অংশে শার্প কেঁচি দিয়ে কেটে নিন। চুল ছেড়ে দিন ।  চাইলে আঁচড়ে নিন। চুল ছড়িয়ে দেখুন হাফ মুন শেইপে এসেছে কিনা।

 

এবার  দ্বিতীয় রাবার ব্যান্ডটি খুলে ফেলুন। কেবল হেয়ার লাইন বরাবর করা পনিটেলটি থাকবে। এবার এই পনিটেলের চুলগুলোকে তিনভাগে ভাগ করে আলাদা তিনটি রাবার ব্যান্ড দিয়ে পৃথক তিনটি পনিটেল করে নিন।

 

এবার ঠিক আগের মতো যেকোন একটি সাইড পনিটেল নিয়ে মধ্যমা এবং তর্জনী আঙুলের মাঝে ঝুঁটির শেষের অংশের চুল সামান্য ছড়িয়ে নিন। চুলের সাথে অ্যাঙ্গেল পজিশনে প্যারারালি রেখে কেঁচি চালিয়ে যাবেন। তারপর থিনিং হেয়ার সিজর দিয়ে হালকা করে ছেঁটে নিন। এভাবে বাকি ২টি ঝুঁটিগুলো কেটে নিন।

 

এবার রাবার ব্যান্ড-গুলো খুলে ফেলুন। আঁচড়ে নিন। ছড়িয়ে দিলে দেখবেন হালকা ইউ শেইপ ধারণ করেছে। এবার হেয়ার লাইন ঘেঁষে বেঁধে রাখা রাবার ব্যান্ডটিও খুলে ফেলুন। আবার আঁচড়ে নিন। দেখুন তো সুন্দর লং লেয়ারড কাট হয়ে গেল।


ছবি – পিন্টারেস্ট ডট কম
লিখেছেন- নীলা

Comments

comments